মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C

বুড়াইল ডি,এস বহুমূখী ফাজিল (ডিগ্রী) মাদ্‌রাসা

http://khetlal.joypurhat.gov.bd/sites/default/files/files/www.joypurhat.gov.bd/education_institute/12b222b7_1aba_11e7_8120_286ed488c766/55555555.jpg
  • সংক্ষিপ্ত বর্ণনা
  • প্রতিষ্ঠাকাল
  • ইতিহাস
  • প্রধান শিক্ষক/ অধ্যক্ষ
  • অন্যান্য শিক্ষকদের তালিকা
  • ছাত্র-ছাত্রীর সংখ্যা (শ্রেণীভিত্তিক)
  • পাশের হার
  • বর্তমান পরিচালনা কমিটির তথ্য
  • বিগত ৫ বছরের সমাপনী/পাবলিক পরীক্ষার ফলাফল
  • শিক্ষাবৃত্ত তথ্যসমুহ
  • অর্জন
  • ভবিষৎ পরিকল্পনা
  • ফটোগ্যালারী
  • যোগাযোগ
  • মেধাবী ছাত্রবৃন্দ

অত্র এলাকার মাদ্রাসা সমূহের মধ্যে বুড়াইল ডি,এস বহুমুখী ফাজিল (ডিগ্রী) মাদ্রাসার নাম বিশেষভাবে উল্লেখযোগ্য। ১৯৭০ সালে প্রতিষ্ঠিত এ মাদ্রাসাটি অদ্যাবধি দেশ ও জাতির অসংখ্য খ্যাতিমান জ্ঞানী, গুনী, দক্ষ, আদর্শ ও যোগ্য নাগরিক তৈরীর অবদান রেখে চলেছে। যারা ব্যক্তি, সমাজ ও রাষ্ট্রীয় জীবনে কৃতিত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে চলেছে। স্থানীয় জনসাধারনের সাহায্য ও সহযোগিতায় তিলে তিলে গড়ে উঠা এই দ্বীনি প্রতিষ্ঠানটি অত্র এলাকার জ্ঞান পিপাসু মানুষের অন্তরে এক বিশেষ স্থান দখল করে আছে। ১৯৭০ সালে তৎকালীন বগুড়া জেলার ক্ষেতলাল থানাধীন বড় তারা ইউনিয়নের ০২ নং ওয়ার্ডের অন্তর্গত বুড়াইল গ্রামের একটি মনোরম পরিবেশে অত্র গ্রামের মরহুম দিলবর আলী আকন্দের প্রচেষ্টায় এলাকার ধর্মপ্রাণ মুসলমানদের সার্বিক সহযোগিতায় বুড়াইল ফোরকানিয়া মাদ্রাসা নামে ভিত্তি স্থাপন করেন। প্রথমে মাদ্রাসাটিতে মাটির দেওয়াল এবং খড়ের ছাউনী দিয়ে শ্রেণী কক্ষ তৈরী করে পাঠদান শুরু করা হয়। ১৯৭৫ সালে তৎকালীন বগুড়া জেলার প্রাথমিক জেলা শিক্ষা অফিসার মাদ্রাসাটি এবতেদায়ী শাখা মঞ্জুরী প্রদান করেন। ১৯৭৭ সালে স্থানীয় জন সাধারনের চাহিদার প্রেক্ষিতে মাদ্রাসাটিতে দাখিল শ্রেণী খোলা হয় এবং মাদ্রাসার নাম করণ করা হয় বুড়াইল ডি,এস, দাখিল মাদ্রাসা। ১৯৮১ সালের ০১/০১/১৯৮১ ইং তারিখ হইতে দাখিল সাধারন বিভাগ মঞ্জুরী পায়। অতপর যুগোপযোগী বিজ্ঞান শিক্ষার চাহিদা হইলে ১৯৮৪ সালের ০১/০১/১৯৮৪ তারিখ হইতে দাখিল শাখায় বিজ্ঞান, মুজাব্বিদ ও হিফজুল কুরআন বিভাগ মঞ্জুরী লাভ করে। ১৯৮৫ সালে আলিম খোলার উদ্যোগ গ্রহণ করলে ১৯৮৬ সালের ০১/০৭/৮৬ ইং তারিখ হইতে আলিম শাখায় সাধারন ও বিজ্ঞান বিভাগ মঞ্জুরী পায় এবং উক্ত শাখাতে ১৯৮৮ ইং সালের ০১/০৭/১৯৮৮ তারিখ হইতে আলিম মুজাব্বিদ মাহির বিভাগ মঞ্জুরী পায়। ১৯৮৭ সালে ছাত্র, শিক্ষক ও স্থানীয় জনসাধারনের চাহিদার প্রেক্ষিতে ফাজিল খোলার উদ্যোগ গ্রহণ করলে ১৯৮৮ সালের ০১/০৭/১৯৮৮ ইং তারিখ হইতে ফাজিল সাধারন বিভাগ মঞ্জুরী পায় এবং ২০০৭ সালে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় কুষ্টিয়ায় অধিভুক্ত হয়। বর্তমানে মাদ্রাসাটি সুদক্ষ শিক্ষক মন্ডলী ও একটি শক্তিশালী পরিচালনা কমিটির দ্বারা পরিচালিত হইতেছে।

ছবি নাম মোবাইল ইমেইল
http://khetlal.joypurhat.gov.bd/sites/default/files/files/khetlal.joypurhat.gov.bd/officer_list/2d71a1d4_1ab0_11e7_8120_286ed488c766/1_2.jpg নূর মোহাম্মদ রব্বানী ০17১২০১০৭৪৩ khosbadanalimmad@gmail.com

ছবি নাম মোবাইল ইমেইল

শ্রেণী

ছাত্র

ছাত্রী

মোট

প্রথম

২৩

২২

৪৫

দ্বিতীয়

২৪

২০

৪৪

তৃতীয়

২৯

১৩

৪২

চতুর্থ

২৮

১২

৪০

পঞ্চম

২৩

০৬

২৯

ষষ্ঠ

৩২

১১

৩৩

সপ্তম

১৫

১৩

২৮

অষ্ঠম

৩০

১৮

৪৮

নবম

সাধারণ

০১

০৫

০৬

বিজ্ঞান

১৫

-

১৫

দশম

সাধারণ

-

-

-

বিজ্ঞান

০২

০৭

০৯

আলিম

১ম বর্ষ সাধারণ

১৩

০১

১৪

১ম বর্ষ বিজ্ঞান

০২

০২

০৪

১ম বর্ষ মুজাব্বিদ

০২

-

০২

২য় বর্ষ সাধারণ

১০

০২

১২

২য় বর্ষ বিজ্ঞান

০৮

০২

১০

২য় বর্ষ মুজাব্বিদ

০২

০২

০৪

ফাজিল

১ম বর্ষ

১৩

০৪

১৭

২য় বর্ষ

১২

০৩

১৫

৩য় বর্ষ

০৩

০২

০৫

মোট-

২৮৫

১৪৫

৪৩০

৮১.১৮%

ক্র. নং

নাম

পেশা

শিক্ষাগত যোগ্যতা

সদস্য পরিচিতি

মো: আতাউর রহমান

ব্যবসা

ফাজিল

সভাপতি

মো: আমিনুল ইসলাম

উপশি অফিসার

এম.এ

সহ-সভাপতি (বিদ্যোৎসাহী সদস্য)

নূর মোহাম্মদ রব্বানী

শিক্ষকতা

কামিল

অধ্যক্ষ/ সদস্য সচিব পদাধিকার বলে

মো: বেলাল উদ্দীন

কৃষি

এস.এস.সি

বিদ্যোৎসাহী সদস্য

মো: নাসির উদ্দীন

ব্যবসা

বি.এ

বিদ্যোৎসাহী সদস্য

মো: সোলেমান আলী

কৃষি

৮ম শ্রেণী

প্রতিষ্ঠাতা সদস্য

মো: আলমগীর হোসেন

শিক্ষকতা

কামিল

শিক্ষক প্রতিনিধি

মো: মোখলেছুর রহমান

শিক্ষকতা

এম.এ

শিক্ষক প্রতিনিধি

মোছা: মোত্তারা বানু

শিক্ষকতা

কামিল

শিক্ষক প্রতিনিধি

১০

আলহাজ্ব মো: আবুল হোসেন

অব: শিক্ষক

এইচ.এস.সি

দাতা সদস্য

১১

মো: তোফাজ্জল হোসেন

ব্যবসা

দশম শ্রেণী

অভিভাবক সদস্য

১২

মো: আব্দুর রহিম মন্ডল

অব: শিক্ষক

বি,এ

অভিভাবক সদস্য

১৩

মো: আফতাব হোসেন

কৃষি

৮ম শ্রেণী

অভিভাবক সদস্য

১৪

মো: শাহাদৎ হোসেন

চিকিৎসক

বি,এ

কো-আপ সদস্য (ডাক্তার)

এবতেদায়ী সমাপনী

সাল

মোট পরীক্ষার্থী

পাশকৃত পরীক্ষার্থী

ফলাফলের হার

২০১০

১২

০৯

৭৫%

২০১১

১৩

১০

৭৬.৯২%

জে,ডি,সি

সাল

মোট পরীক্ষার্থী

পাশকৃত পরীক্ষার্থী

ফলাফলের হার

২০১০

০৯

০৫

৫৫.৫৫%

২০১১

২৩

২০

৮৬.৯৫%

দাখিল

সাল

মোট পরীক্ষার্থী

পাশকৃত পরীক্ষার্থী

ফলাফলের হার

২০০৭

৩৭

২৪

৬৪.৮৬%

২০০৮

৩১

২৪

৭৭.৪২%

২০০৯

২১

১৪

৬৬.৬৭%

২০১০

৩১

২৫

৮০.৬৫%

২০১১

৩১

২৫

৮০.৬৫%

আলিম

সাল

মোট পরীক্ষার্থী

পাশকৃত পরীক্ষার্থী

ফলাফলের হার

২০০৭

০৯

০২

২২.২২%

২০০৮

১২

১১

৯১.৬৭%

২০০৯

১৪

১০

৭১.৪৩%

২০১০

১৪

১১

৭৮.৫৭%

২০১১

১৭

১২

৭০.৫৯%

ফাজিল

সাল

মোট পরীক্ষার্থী

পাশকৃত পরীক্ষার্থী

ফলাফলের হার

২০০৭

০৩

০৩

১০০%

২০০৮

০৬

০৬

১০০%

২০০৯

০৬

০৬

১০০%

২০১০

১১

০৯

৮১.৮২%

২০১১

১৭

১৭

১০০%

২০১১ সালে দাখিল পরীক্ষার ফলাফলের ভিত্তিতে দুই জন মেধাভিত্তিক বৃত্তি পেয়েছে। এছাড়াও ২০১০ ও ২০১১ সালে দাখিল পরীক্ষায় ভাল ফলাফলের জন্য শিক্ষা প্রতিষ্ঠানকে ৪০ হাজার টাকা উদ্দীপনা পুরস্কার প্রদান করা হয়েছে।

ব্যক্তি, সমাজ ও রাষ্ট্রীয় জীবনে কৃতিত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন, যেমন- শিক্ষক, ব্যাংকার, প্রশাসনিক কর্মকর্তা আরো দেশ ও জাতীর খ্যাতিমান অসংখ্য জ্ঞানীগুনী বরেণ্য ব্যক্তিত্ব উপহার দিয়ে চলছে।

কারিগরি শাখা ও অনার্স কোর্স সহ বিভিন্ন আধুনিক বিষয়ের সাথে ইসলাম বিষয়ের সমন্বয় সাধন করে দেশ ও জাতীর সেবা প্রদান করণ। শিক্ষক-কর্মচারী, অভিভাবক ও সুদক্ষ পরিচালনা কমিটির সদস্যবৃন্দের যৌথ উদ্যোগে মাদ্রাসার শিক্ষার গুনগত মান উন্নয়নে ১০০% ফলাফল নিশ্চিত  করার প্রচেষ্টা চালানো। জন সাধারনের মাঝে স্যানিটেশন, পয়:নিষ্কাশন ও স্বাস্থ্যসেবা উন্নয়নে ভূমিকা রাখা।  

বগুড়া-জয়পুরহাট জেলা বোর্ডের রাস্তা সংলগ্ন এবং বগুড়া-জয়পুরহাট সিএন্ডবি রোডের বটতলী বাজার হইতে ২ কি: মি: পূর্বে। এখানে বাস, অটোরিক্সা, বেবী ট্যাক্সি, রিক্সা, ভ্যানসহ সকল প্রকার যানবাহনে যাতায়াত করা যায। এছাড়া মোবাইল যোগাযোগ অধ্যক্ষ- ০১৭১২-০১০৭৪৩, উপাধ্যক্ষ- ০১৭১৪-৯৩০৯৮৯, অফিস- ০১৭১০-০৫৪৯১৮