মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C

মামুদপুর দ্বি-মুখী উচ্চ বিদ্যালয়

  • সংক্ষিপ্ত বর্ণনা
  • প্রতিষ্ঠাকাল
  • ইতিহাস
  • প্রধান শিক্ষক/ অধ্যক্ষ
  • অন্যান্য শিক্ষকদের তালিকা
  • ছাত্র-ছাত্রীর সংখ্যা (শ্রেণীভিত্তিক)
  • পাশের হার
  • বর্তমান পরিচালনা কমিটির তথ্য
  • বিগত ৫ বছরের সমাপনী/পাবলিক পরীক্ষার ফলাফল
  • শিক্ষাবৃত্ত তথ্যসমুহ
  • অর্জন
  • ভবিষৎ পরিকল্পনা
  • ফটোগ্যালারী
  • যোগাযোগ
  • মেধাবী ছাত্রবৃন্দ

প্রতিষ্ঠানটি জয়পুরহাট জেলার ক্ষেতলাল উপজেলার অন্তর্গতমামুদপুর ইউনিয়নের মামুদপুর গ্রামে অবস্থিত। প্রতিষ্ঠানটির বিদ্যালয়র চত্বর সংলগ্ন অক্ষন্ড জমির পরিমান প্রায় ৩ একর । মোট জমির পরিমান প্রায় ১৬.১০ একর। এটি সমস্ম ইউনিয়ন জুড়ে একটি মাত্র ঐতিহ্যবাহী শিক্ষা প্রতিষ্ঠান।

ছবি নাম মোবাইল ইমেইল
মোঃ সহিদুল ইসলাম মন্ডল ০১৭১২৩১৪৮৭৫ mamudpurhighschool@gmail.com

ছবি নাম মোবাইল ইমেইল

শ্রেণী

ছাত্র

ছাত্রী

মোট

৬ষ্ঠ

৭৮

৮৯

১৬৭

৭ম

৫২

৫১

১০৩

৮ম

৫৭

৫৮

১১৫

৯ম

৫১

৩৭

৮৮

১০ম

৩২

২৮

৬০

৯ম (ভোক)

৩৩

১০

৪৩

মোটঃ

৩০৩

২৭৩

৫৭৬

৮৯.৭০%

ক্রমিক নং

নাম

পদবী

মো: এম এইচ নুরন নবী চৌধূরী

সভাপতি

মো: জুলহাউজ মন্ডল

সদস্য

মো: মোজাফ্ফর হোসেন

সদস্য

মো: মোত্তালেব হোসেন

সদস্য

মো: রেজাউল করিম

সদস্য

মোছা: রেহেনা বেগম

সদস্য

মো: খায়রুল আলম তালুকদার

শিক্ষক প্রতিনিধি

নুরন নবী চৌধূরী

শিক্ষক প্রতিনিধি

নাসরিন আক্তার

শিক্ষক প্রতিনিধি

১০

মো: সহিদুল ইসলাম মন্ডল

সম্পাদক

বিগত ৫ বছরে জেএসসি পরীক্ষার ফলাফল

সাল

পরীক্ষার্থীর সংখ্যা

উত্তীর্ন

শতকরা

ছাত্র

ছাত্রী

মোট

ছাত্র

ছাত্রী

মোট

২০১০

৫০

৩১

৮১

২৮

১৭

৪৫

৫৬%

২০১১

৮৬

৫৪

১৪০

৭২

৫১

১২৩

৮৮%

বিগত ৫ বছরে এসএসসি পরীক্ষার ফলাফল

সাল

পরীক্ষার্থীর সংখ্যা

উত্তীর্ন

শতকরা

ছাত্র

ছাত্রী

মোট

ছাত্র

ছাত্রী

মোট

২০০৭

২৭

২৭

৫৪

১৬

২০

৩৬

 

২০০৮

১৬

১৮

৩৪

১২

১৪

২৬

 

২০০৯

২৪

১৭

৪১

১৪

১৪

২৮

 

২০১০

৪০

৩২

৭২

২৪

১৮

৪২

 

২০১১

৩৫

৩৩

৬৮

৩১

৩০

৬১

 

শিক্ষাবৃত্তির তথ্য

 

  

  

  

  

  

  

             

সাল

ট্যালেন্টপুল

ছাত্র

ছাত্রী

সাধারণ বৃত্তিপ্রাপ্ত

ছাত্র

ছাত্রী

২০১০

-

-

-

২০১১

-

২০১২

জেএসসি-তে ২০১০ সালে ১জন এ+, ২০১১ সালে ৫জন এ+

এসএসসি-তে ২০০৭ সালে ১জন, ২০০৮ সালে ২জন, ২০০৯ সালে ২জন, ২০১০ সালে ৪জন এবং ২০১১ সালে ২জন এ+ পেয়েছে।

শতভাগ পাশ সহ মাল্টিমিডিয়া ক্লাসরুম স্থাপন ও উচ্চ মাধ্যমিক পর্যায়ে উন্নীত করা।